অসুস্থরা বাসা থেকে অফিস করবেন: প্রতিমন্ত্রী

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেছেন, করোনার উদ্ভূত পরিস্থিতি বিবেচনা করে আগামী সাতদিন পর বিধিনিষেধের বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত জানানো হবে। তিনি বলেন, করোনাভাইরাস মহামারীর সংক্রমণ ঠেকা‌তে অর্ধেক জনবল নিয়ে অফিস শুরু হ‌য়ে‌ছে। অর্ধেক সংখ্যক কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়ে সরকারি/আধাসরকারি/স্বায়ত্তশাসিত/বেসরকারি প্রতিষ্ঠানসমূহ যেনো চলে। করোনার যে সংক্রমণ তা ঊর্ধ্বগতি, কালকে প্রায় ৩১ শতাংশ সংক্রমণ ছিল। এ অবস্থায় গর্ভবতী নারী এবং অসুস্থ ব্যক্তিরা বাসা থেকে অফিস করবেন। আজ সোমবার (২৪ জানুয়ারি) সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের তি‌নি এ কথা বলেন।

বিধিনিষেধের সময়সীমা আরও বাড়বে কি না এ বিষয়ে আজ সচিবালয়ে নিজ দফতরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, সেটি (বিধিনিষেধ) করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতির উপর নির্ভর করবে। তিনি বলেন, আমাদের উদ্দেশ্য সবাই মাস্ক পরুক। এই সময়টা আমরা অতিক্রম করতে চাই। প্রতিমন্ত্রী বলেন, আগামী ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি নাগাদ এটি (করোনার সংক্রমণ) বাড়তে থাকবে। সবাইকে সচেতন হতে হবে। আমরা চাই, এই তৃতীয় ঢেউ থেকে যত তাড়াতাড়ি উত্তোরণ করতে পারি। সেজন্য সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে তৃতীয় ঢেউ মোকাবিলা করতে হবে।

তিনি বলেন, অর্ধেক জনবল নিয়ে অফিস করার বিষয়টি সোমবার থেকে বাস্তবায়নের কাজ শুরু হয়েছে। যেহেতু তৃতীয় ঢেউয়ে আছি, আমাদের প্রথম ও দ্বিতীয় ঢেউয়ে এ রকম নির্দেশনা ছিল, সেগুলো আমরা বাস্তবায়ন করেছি। যার কারণে অর্ধেক সংখ্যক নিয়ে যে অফিস করা এবং এরও কম সংখ্যক নিয়ে অফিস করার প্রাকটিস করেছি। সেইজন্য আমাদের প্রাকটিস আছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*